বাড়ি খেলাধুলা ওপেনিংয়ে সৌম্যর সুযোগ কম- বিসিবি

ওপেনিংয়ে সৌম্যর সুযোগ কম- বিসিবি

103

এশিয়া কাপে ইনজুরির কারণে তামিম ইকবাল বাদ পড়ার পর সুযোগ পেয়েছিলেন সৌম্য সরকার। তবে তিনি তেমন জ্বলে উঠতে পারেননি সেই টুর্নামেন্টে। ফলে আবারও ঘরের মাঠে জিম্বাবুয়ে সিরিজে বাদ পড়েছেন তিনি।

এবার জাতীয় ক্রিকেট লিগের নজরকাড়া পারফরম্যান্স এবং একমাত্র ওয়ানডে প্রস্তুতি ম্যাচে বিসিবি একাদশকে নেতৃত্ব দিয়ে শতক তুলে নেওয়ায় আবারও জাতীয় দলে ডাক পেয়েছেন সৌম্য। ওয়ানডে সিরিজের শেষ ম্যাচে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে মাঠে নামার জন্য তাঁকে দলে নিয়েছে বিসিবি।

তবে তাঁকে তিন কিংবা সাত নম্বরে খেলানো হতে পারে বলে মন্তব্য করেছেন প্রধান নির্বাচক মিনহাজুল আবেদীন নান্নু। সে ক্ষেত্রে ফজলে রাব্বি কিংবা মোহাম্মদ সাইফউদ্দিনের যেকোনো একজনকে কিংবা দুজনকেই দলে অনুপস্থিত থাকতে হতে পারে।

কারণ, নাজমুল হোসেন শান্ত কিংবা আরিফুল হককেও পরখ করতে চেয়েছে বিসিবি।সৌম্যের চিরচেনা পজিশন ওপেনিংয়ে তাঁকে নামানোর কথা ভাবছে না বিসিবি। বরং নান্নু জানিয়েছেন, ‘ওয়ানডে দলে আরো কিছু পজিশনে খেলোয়াড় স্থির করা প্রয়োজন।

আমরা দেখতে চাই, সেখানে সৌম্য কেমন খেলে। আমরা তাঁকে ওপেনিংয়ের জন্য বিবেচনায় রাখছি না। তিন কিংবা সাতে সে কেমন করে, সেটি আমরা দেখতে চাই।’ তিনে নামা সাকিব ইনজুরিতে থাকায় সেখানে সুযোগ পেয়েও কাজে লাগাতে পারেননি ফজলে মাহমুদ রাব্বি। দুই ম্যাচেই শূন্য রানে আউট হয়েছেন তিনি।

তবে সাতে নামা সাইফউদ্দিন প্রথম ম্যাচে ব্যাট হাতে জ্বলে উঠেছেন। বল হাতে তিন উইকেট নিয়ে এবং একটি মেডেন ওভার নিয়ে ম্যাচসেরার পুরস্কারও পেয়েছেন তিনি। তাই সৌম্য এলে দল থেকে বাদ পড়তে পারেন রাব্বি। নান্নু বলেন, ‘আমাদের দেখা প্রয়োজন, সাত নম্বরে আমাদের আসলেই কাকে দরকার—বোলিং নাকি ব্যাটিং অলরাউন্ডার। সৌম্য সম্প্রতি বোলিংয়ে উইকেটের পাশাপাশি ব্যাটিংয়ে রান করে নজরে এসেছে।’

অবশ্য যেকোনো পজিশনে নেমেই খেলতে প্রস্তুত সৌম্য। তিনি বলেন, ‘দলের প্রয়োজনে আমি যেকোনো স্থানেই ব্যাট করতে প্রস্তুত। আমি উপরে ব্যাটিং করা যেমন উপভোগ করেছি, নিচের সারিতে ব্যাট করেছি একইভাবে। বোলিং বিভাগেও আমি যথেষ্ট উন্নতি করার চেষ্টা করছি।’

এশিয়া কাপেও ফর্মে না ফেরার কারণে দলে থিতু হতে পারেননি সৌম্য। এবার সেই সুযোগ তিনি কাজে লাগাতে পারবেন কি না, সেটিই দেখার বিষয়।