বাড়ি অপরাধ সমবায় সমিতির প্রতারনার ঘটনায় খুলশী থানার সামনে বিক্ষোভ

সমবায় সমিতির প্রতারনার ঘটনায় খুলশী থানার সামনে বিক্ষোভ

164

অরগাইনেজেশন অব সোশ্যাল সার্ভিস এন্ড এলিমিনেশন অব পোভার্টি (ওসেপ) একটি সমবায় সমিতি যার প্রতারণার শিকার পাহাড়তলী এলাকার  অনেক গুলো হতদরিদ্র পরিবার। তারা তাদের জামানতের টাকা ফেরত ও প্রতারণার বিচারের দাবিতে বিক্ষোভ করেছে খুলশী থানার সামনে।

দীর্ঘদিন ধরে জামানতের টাকা ফেরত না পাওয়ায় গত শুক্রবার উল্লেখিত মাল্টিপারপাস সমিতির ফিল্ড অফিসার জাহানারা বেগম লাকীকে পুলিশে সোপর্দ করে তারা। রবিবার (০৫-১১-২০১৮) তার ও প্রতিষ্ঠানের বিরুদ্ধে মামলার পরিস্থিতি জানতে খুলশী থানায় জড়ো হন তারা।

এসময় থানার সামনে বিক্ষোভও করেন তারা। পরে পুলিশের পক্ষ হতে মলার কপি দেখালে তারা শান্ত হয়।
জানা যায়, ২০১০ থেকে ২০১৬ পর্যন্ত এই সমিতিতে অর্থ লেনদেন করে আসছে পাহাড়তলী এলাকার হাজারো হতদরিদ্র পরিবার।

এই সমিতির প্রধান কার্যালয় এনায়েতবাজারে। ২০১৬ সালে এই সমিতির প্রতিষ্ঠাতা জসিম উদ্দিন মারা গেলে আর্থিক লেনদেন বন্ধ করে দেয় সমিতিটি। দীর্ঘ দুই বছরেও পাওনা টাকা ফেরত না পাওয়ায় সমিতির ফিল্ড অফিসার জাহানারা বেগম লাকীকে ধরে পুলিশে সোপর্দ করে ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারগুলোর সদস্যরা।

কিন্তু জাহানারা বেগমের স্বজনদের হুমকির প্রেক্ষিতে তারা গতকাল খুলশী থানায় জড়ো হয়ে তার মামলার বিষয়ে জানতে চায়। এ সময় জামানতের টাকা ফেরত পাওয়ার দাবিও জানায় তারা। পরে খুলশী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা শেখ মো. নাসির উদ্দীন তাদেরকে জাহানারা বেগমের বিরুদ্ধে মামলার বিষয়টি নিশ্চিত করলে তারা শান্ত হন।

জানতে চাওয়া হলে খুলশী থানার অফিসার ইনচার্জ  শেখ মো. নাসির উদ্দীন জানান ‘অভিযুক্ত জাহানারা বেগমের বিরুদ্ধে নিয়মিত মামলা রুজু হয়েছে। এখন আইন অনুযায়ী তার বিচার কাজ চলবে। এখানে খুলশী থানার কিছু করার নেই। কিন্তু নিকটবর্তী হওয়ায় এসব গ্রাহকেরা না বুঝে থানায় এসে জড়ো হয়। আমরা তাদের ব্যাপারটি বুঝিয়ে বললে তারা সরে যায়। তিনি আরো জানান জাহানারা বেগম লাকীসহ অর্থ আত্মসাতে অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে তদন্ত সাপেক্ষে ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে।’