বাড়ি আন্তর্জাতিক ভারী বর্ষণে ওয়াশিংটন ডিসিতে বন্যা, হোয়াইট হাউজেও পানি

ভারী বর্ষণে ওয়াশিংটন ডিসিতে বন্যা, হোয়াইট হাউজেও পানি

208

ভারি বর্ষণের ফলে যুক্তরাষ্ট্রের ওয়াশিংটন ডিসি আকস্মিক বন্যার কবলে পড়েছে। স্থানীয় সময় সোমবার শহরটিতে বৃষ্টিপাতের পরিমাণ রেকর্ড করা হয় ৭৬ মিলিমিটার (৩ ইঞ্চি)। দেশটির আবহাওয়া অধিদফতর এ তথ্য জানিয়েছে। খবর-ফক্স নিউজ।

সোমবারের ওই বৃষ্টিপাতে মাত্র এক ঘণ্টার মধ্যেই প্রতিদিনের বৃষ্টিপাতের রেকর্ড ভেঙে যায় এবং নগরীর অনেক এলাকায় লোকজন আকস্মিক বন্যার মধ্যে গাড়িতে আটকা পড়ে বলে, জানিয়েছে বার্তা সংস্থা রয়টার্স।

স্থানীয় সময় সকাল ৯টা থেকে ১০টার মধ্যে রিগ্যান ন্যাশনাল এয়ারপোর্টে আট দশমিক চার সেন্টিমিটার বৃষ্টিপাত রেকর্ড করা হয়। এটি এক ঘণ্টায় আগের সর্বোচ্চ বৃষ্টিপাতের রেকর্ড পাঁচ দশমিক ছয় সেন্টিমিটারকে ছাড়িয়ে যায়; ১৯৫৮ সালে এ বৃষ্টিপাত রেকর্ড করা হয়েছিল।  

আবহাওয়া অধিদফতরের তথ্য মতে, আকস্মিক বন্যায় রক্ষা পায়নি মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের দাফতরিক বাসভবন হোয়াইট হাউসও। এছাড়া পানিতে সেখানকার রাস্তা-ঘাট, পার্ক তলিয়ে গেছে। এরই মধ্যে বাড়ি-ঘরেও পানি উঠতে শুরু করেছে। 

ওয়াশিংটনের নিকটবর্তী ভার্জিনিয়ার আর্লিংটনে আরও বেশি বৃষ্টিপাত রেকর্ড করা হয়েছে। সেখানে সকাল ৯টা থেকে ১০টার মধ্যে ১২ দশমিক সাত সেন্টিমিটার বৃষ্টিপাত হয়েছে বলে চেনার্ড জানিয়েছেন।

সকালের শেষভাগে বৃষ্টিপাত কমে এসেছে এবং দুপুরের মধ্যে বন্ধ হতে পারে, এমন আশা করা হচ্ছে বলে জানিয়েছেন তিনি।   

প্রবল বৃষ্টিপাতের সময় ওয়াশিংটনের মেট্রো স্টেশনগুলোর সিলিং থেকে প্রবল ধারায় পানি নেমে আসতে থাকে ও নগরীর প্রধান প্রধান জাদুঘর ও স্মৃতিসৌধমুখি সড়কগুলো তলিয়ে যায়। এই সড়কগুলো বন্ধ করে দেওয়ার পর স্থানীয় জরুরি বিভাগের কর্মীরা গাড়িতে আটকা পড়া বেশ কয়েকজনকে উদ্ধার করে।

দুপুরের মধ্যে ১৫ জন গাড়ি চালককে উদ্ধার করা হয়েছে বলে জানায় ওয়াশিংটন ডিসি দমকল ও ইএমএস। পানিতে আটকা পড়া লোকজনকে উদ্ধারে দমকল কর্মীরা হলুদ রঙের উদ্ধারকারী লাইফবোট ব্যবহার করে।

হোয়াইট হাউজের (১৬০০ পেনসিলভ্যানিয়া অ্যাভিনিউ) নিচ তলার একটি দপ্তরের মেঝেতে চেয়ার ও ডেস্কের তলায় ভেজা কার্পেট ও পানি দেখা যায়।

টুইটারে ছবি দিয়ে সিএনএনের সাংবাদিক বেস্টি ক্লেইন লিখেন, “হোয়াইট হাউজে চুইয়ে পানি উঠছে।