বাড়ি সম্পাদকীয় ট্রাম্পের কাছে প্রিয়া সাহার অভিযোগ উদ্দেশ্যমূলক: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

ট্রাম্পের কাছে প্রিয়া সাহার অভিযোগ উদ্দেশ্যমূলক: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

110

দেশে সংখ্যালঘু নির্যাতনের ব্যাপারে অভিযোগ করে যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের সাহায্য চেয়েছেন বাংলাদেশ হিন্দু বৌদ্ধ খ্রিস্টান ঐক্য পরিষদের অন্যতম সাংগঠনিক সম্পাদক প্রিয়া সাহা। 

সাম্প্রদায়িক নিপীড়নের শিকার বিভিন্ন দেশের প্রতিনিধিদের সঙ্গে হোয়াইট হাউজে গিয়ে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের কাছে প্রিয়া সাহা নামের বাংলাদেশি নারী যে অভিযোগ করেছেন, তা উদ্দেশ্যমূলক বলে মন্তব্য করেছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল। গতকাল শুক্রবার রাতে প্রিয়া সাহার দেওয়া সাক্ষাৎকারে তিনি এ মন্তব্য করেন।

মার্কিন প্রেসিডেন্টকে প্রিয়া সাহা বলেন, ‘আমি বাংলাদেশ থেকে এসেছি। সেখানে ৩ কোটি ৭০ লাখ (৩৭ মিলিয়ন) হিন্দু বৌদ্ধ খ্রিষ্টান উধাও হয়ে গেছেন। এখনো সেখানে ১ কোটি ৮০ লাখ (১৮ মিলিয়ন) সংখ্যালঘু জনগোষ্ঠী রয়েছে। দয়া করে আমাদের সাহায্য করুন। আমরা আমাদের দেশ ছাড়তে চাই না। আমি আমার বাড়ি হারিয়েছি। তারা আমার ঘরবাড়ি আগুনে পুড়িয়ে দিয়েছে। জমি কেড়ে নিয়েছে। এর কোনো বিচার এখনো পাইনি।’

প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প তখন তাঁর কাছে জানতে চান, কারা এসব করেছে। প্রিয়া সাহা বলেন, উগ্রপন্থী মুসলমানরা এটা করেছে। সব সময় রাজনৈতিক ছত্রচ্ছায়ায় তারা এটা করে থাকে।

এদিকে প্রিয়া সাহা কেন ট্রাম্পের কাছে এ অভিযোগ করেছেন, তা খতিয়ে দেখা হবে বলে পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী শাহরিয়ার আলম তাঁর ফেসবুক পেজে লিখেছেন।

দেশে সংখ্যালঘু নির্যাতনের ব্যাপারে অভিযোগ করে যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের সাহায্য চেয়েছেন বাংলাদেশ হিন্দু বৌদ্ধ খ্রিস্টান ঐক্য পরিষদের অন্যতম সাংগঠনিক সম্পাদক প্রিয়া সাহা। তাঁর এ অভিযোগ প্রত্যাখ্যান করে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান বলেছেন, এসব পুরোপুরি মিথ্যা, ভিত্তিহীন। নিশ্চয়ই এর পেছনে কোনো উদ্দেশ্য আছে। আর তিনি যে বাড়ি পুড়িয়ে দেওয়া ও জমি কেড়ে নেওয়ার কথা বলেছেন, সেটা কোথায় হয়েছে, বলুক। এরপর প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

এদিকে ঢাকায় নিযুক্ত যুক্তরাষ্ট্রের রাষ্ট্রদূত আর্ল মিলার গতকাল বিকেলে রাজধানীর মেরুল বাড্ডা বৌদ্ধমন্দিরে এক অনুষ্ঠানে সাংবাদিকদের প্রশ্নের উত্তরে বলেন, প্রিয়া সাহার অভিযোগ ঠিক নয়।

অন্যদিকে আসাদুজ্জামান খান কামাল বলেন, ‘তিনি (প্রিয়া সাহা) যে অভিযোগ করেছেন, তেমন কিছু ঘটছে বলে আমার জানা নেই। এটা নিশ্চয়ই কোনো চক্রান্ত; এটা উদ্দেশ্যমূলক বলেই আমার মনে হয়।’

হোয়াইট হাউজে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের কাছে প্রিয়া সাহা যে বক্তব্য দিয়েছেন, তার ভিডিও দেখেছেন জানিয়ে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আরো বলেন, ‘কথা হচ্ছে যে, এ ধরনের অভিযোগ (সংখ্যালঘু নির্যাতন) বাংলাদেশের কোনো মানুষই বিশ্বাস করবে না; করেও না। কারণ, এদেশ অসাম্প্রদায়িক চেতনার। প্রধানমন্ত্রীর কঠোর পরিশ্রমের কারণে দেশ আজ এ পর্যায়ে এসেছে, যা বঙ্গবন্ধুর স্বপ্ন ছিল।’

আসাদুজ্জামান খাঁন কামাল বলেন, ‘ভিডিওতে যে মহিলাকে (প্রিয়া সাহা) কথা বলতে দেখা গেছে, তিনি তো কোনোদিন আমাদের কাছে এসে এমন দুঃখের কথা বলেন নাই। পুলিশ প্রশাসন সবসময় সজাগ থাকে যেন দেশের কোনো জায়গায় সংখ্যালঘুরা কোনোভাবে অত্যাচারিত না হয়।’

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ‘তাকে (প্রিয়া সাহা) এখনো বলব, এ ধরনের কোনো ঘটনা যদি ঘটে থাকে, তবে তিনি যেন আমাদের সঙ্গে যোগাযোগ করেন। আমরা এ ধরনের অভিযোগের কোনো সত্যতা এখন পর্যন্ত খুঁজে পাইনি।