শুক্রবার, ১৭ মে ২০২৪, ০৭:০৮ পূর্বাহ্ন
                                           

আবার ওয়ানডে র‍্যাঙ্কিংয়ের শীর্ষে পাকিস্তান

এশিয়া কাপের সহ–আয়োজক হওয়ায় পাকিস্তানের ওপর প্রত্যাশার চাপ ছিল একটু বেশি। কিন্তু এশিয়ান ক্রিকেটের শ্রেষ্ঠত্বের আসরে ফাইনালে ওঠা দূরে থাক, সুপার ফোর থেকে বিদায় নিয়েছে। বাবর আজমের দল এই পর্ব শেষ করেছে পয়েন্ট তালিকার তলানিতে থেকে।

এশিয়া কাপে ব্যর্থতার জেরে পাকিস্তান দলে নাকি অন্তর্কলহও দেখা দিয়েছে। বেশ কয়েকটি সংবাদমাধ্যম জানিয়েছে, ড্রেসিংরুমে বিতণ্ডায় জড়িয়েছেন অধিনায়ক বাবর ও তারকা ফাস্ট বোলার শাহিন শাহ আফ্রিদি।
তবে মাঠে বাবর–আফ্রিদিদের সাম্প্রতিক পারফরম্যান্স আশাব্যঞ্জক না হলেও আইসিসির পক্ষে থেকে ঠিকই সুসংবাদ এসেছে। ৮ দিনের ব্যবধানে আবারও ওয়ানডে র‍্যাঙ্কিংয়ের শীর্ষে উঠে এসেছে পাকিস্তান। গত রাতে নিজেদের ওয়েবসাইটে সর্বশেষ এই র‍্যাঙ্কিং প্রকাশ করেছে বিশ্ব ক্রিকেটের নিয়ন্ত্রক সংস্থা।

ওয়ানডের ‘সিংহাসন’ ফিরে পাওয়া পাকিস্তানের রেটিং পয়েন্ট এখন ১১৫। শ্রীলঙ্কাকে গুঁড়িয়ে এশিয়া কাপে চ্যাম্পিয়ন হলেও দুইয়েই রয়ে গেছে ভারত। দলটির রেটিং পয়েন্টও পাকিস্তানের সমান ১১৫। তবে ভগ্নাংশের হিসাবে এগিয়ে থাকায় পাকিস্তানকেই ওপরে দেখানো হচ্ছে।

বিশ্বকাপের আগমুহূর্তে ওয়ানডে র‍্যাঙ্কিং নিয়ে যেন ইঁদুর–বিড়াল খেলা চলছে। এই পাকিস্তান তো এই অস্ট্রেলিয়া মগডালে চড়ে বসছে। গত মাসে আফগানিস্তানকে ধবলধোলাই করে র‍্যাঙ্কিংয়ের চূড়ায় উঠেই এশিয়া কাপ খেলতে নেমেছিল পাকিস্তান। গত ৯ সেপ্টেম্বর পর্যন্তও তারা ছিল এক নম্বরে।
ওয়ানডের ‘সিংহাসন’ ফিরে পাওয়া পাকিস্তানের রেটিং পয়েন্ট এখন ১১৫। শ্রীলঙ্কাকে গুঁড়িয়ে এশিয়া কাপে চ্যাম্পিয়ন হলেও দুইয়েই রয়ে গেছে ভারত। দলটির রেটিং পয়েন্টও পাকিস্তানের সমান ১১৫। তবে ভগ্নাংশের হিসাবে এগিয়ে থাকায় পাকিস্তানকেই ওপরে দেখানো হচ্ছে।

বিশ্বকাপের আগমুহূর্তে ওয়ানডে র‍্যাঙ্কিং নিয়ে যেন ইঁদুর–বিড়াল খেলা চলছে। এই পাকিস্তান তো এই অস্ট্রেলিয়া মগডালে চড়ে বসছে। গত মাসে আফগানিস্তানকে ধবলধোলাই করে র‍্যাঙ্কিংয়ের চূড়ায় উঠেই এশিয়া কাপ খেলতে নেমেছিল পাকিস্তান। গত ৯ সেপ্টেম্বর পর্যন্তও তারা ছিল এক নম্বরে।
কিন্তু দ্বিপক্ষীয় সিরিজে দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে প্রথম দুই ম্যাচ জিতে পাকিস্তানকে হটিয়ে শীর্ষে উঠেছিল অস্ট্রেলিয়া। আর পাকিস্তান এশিয়া কাপের সুপার ফোরে ভারত ও শ্রীলঙ্কার কাছে হারায় নেমে গিয়েছিল তিনে, ভারত উঠে এসেছিল দুইয়ে। বাংলাদেশের বিপক্ষে ‘নিয়মরক্ষার’ ম্যাচটা ভারত জিততে পারলে তিন সংস্করণেই তারা এক নম্বর হতে পারত। সেটা হয়নি।

যে অস্ট্রেলিয়া সপ্তাহখানেক আগে পাকিস্তানকে টপকে গিয়েছিল, সেই তারাই আবার পাকিস্তানকে শীর্ষে ফিরিয়ে আনল। কাল দক্ষিণ আফ্রিকার কাছে ১২২ রানে হেরে সিরিজ খোয়ানোয় তিনে নেমে গেছে অস্ট্রেলিয়া। দলটির পয়েন্ট এখন ১১৩।

অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে পাঁচ ম্যাচ সিরিজে ২–০ ব্যবধানে পিছিয়ে পড়েও ৩–২ ব্যবধানে সিরিজ জেতা দক্ষিণ আফ্রিকা উঠে এসেছে চারে। প্রোটিয়াদের জায়গা করে দিতে এক ধাপ নিচে নামতে হয়েছে বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন ইংল্যান্ডকে।

ওয়ানডে র‍্যাঙ্কিংয়ের শীর্ষ দশের শেষ পাঁচটি অবস্থানে কোনো নড়চড় হয়নি। বাংলাদেশ ৯৪ পয়েন্ট নিয়ে যথারীতি আছে সাতে। তামিম–মাহমুদউল্লাহদের বিপক্ষে সিরিজ খেলতে এই মুহূর্তে ঢাকায় অবস্থান করা নিউজিল্যান্ড আছে ছয়ে (১০০ পয়েন্ট)। আট, নয় ও দশে আছে যথাক্রমে শ্রীলঙ্কা (৯২), আফগানিস্তান (৮০) ও ওয়েস্ট ইন্ডিজ (৮০)।



ফেইসবুক পেইজ