সোমবার, ১৫ এপ্রিল ২০২৪, ০২:৫০ পূর্বাহ্ন
                                           

পিচ বানাচ্ছে কে, আইসিসি না বিসিসিআই— প্রশ্নের জবাব পেলেন হাফিজ

ভারত-পাকিস্তান ম্যাচ বরাবরই রোমাঞ্চে ঠাসা। দুই চিরপ্রতিদ্বন্দ্বীর ম্যাচ যদি হয় বিশ্বকাপের মঞ্চে, তাহলে তো কথাই নেই। ক্রিকেটপ্রেমীদের উন্মাদনা পৌঁছে যায় তুঙ্গে। দুই পক্ষের মধ্যে বাগ্‌যুদ্ধও লেগে যায়।

আহমেদাবাদের নরেন্দ্র মোদি স্টেডিয়ামে আজ ভারত-পাকিস্তান ম্যাচ সামনে রেখে এবার কথার লড়াইয়ে জড়িয়েছেন দুই দেশের সাবেক ক্রিকেটার মোহাম্মদ হাফিজ ও আকাশ চোপড়া।
বিশ্বকাপে ভারতের একই মাঠের দুটি পিচের আলাদা আচরণ নিয়ে বিতর্ক আছে। চেন্নাইয়ের এমএ চিদাম্বরম স্টেডিয়ামের কথাই ধরা যাক। চিদাম্বরমের পিচ স্পিনস্বর্গ হিসেবেই পরিচিত। এ মাঠেই নিজেদের প্রথম ম্যাচে অস্ট্রেলিয়াকে স্পিনে কাবু করেছে ভারত। তবে কাল চেন্নাইয়ে বাংলাদেশ-নিউজিল্যান্ড ম্যাচে দেখা গেছে পিচের ভিন্ন রূপ। সেখানে স্পিন সেভাবে ধরেনি।
এ নিয়ে ম্যাচ শুরুর আগেই অভিযোগ তোলেন হাফিজ। পাকিস্তানের রাষ্ট্রীয় ক্রীড়া চ্যানেল পিটিভি স্পোর্টসে দেশটির সাবেক অলরাউন্ডার বলেছেন, ‘দেখতে হবে পিচ নিয়ে কে সিদ্ধান্ত নিচ্ছে—আইসিসি নাকি বিসিসিআই। এখন পর্যন্ত ৩ ভেন্যুতে দুটি করে ম্যাচ হয়েছে (বাংলাদেশ-নিউজিল্যান্ড ম্যাচের আগে)—হায়দরাবাদ, দিল্লি ও ধর্মশালা। ওই ৩ ভেন্যুতে একই রকম পিচ দেখা গিয়েছে। চেন্নাইয়ে বাংলাদেশ-নিউজিল্যান্ড ম্যাচে যদি ভারত-অস্ট্রেলিয়া ম্যাচের মতোই পিচ দেখা যায়, তা হলে বুঝতে হবে সিদ্ধান্ত নিচ্ছে আইসিসি। আর যদি পিচ বদলে যায়, তাহলে বুঝতে হবে কে (ভারত) ছড়ি ঘোরাচ্ছে।’
হাফিজ আরও দাবি করেন, বিশ্বকাপের মতো প্রতিযোগিতায় ভারতের প্রভাব বিস্তারের সুযোগ নেই, ‘বিশ্বকাপে আইসিসির ওপর বিসিসিআই প্রভাব খাটাতে পারে না। পিচ কিউরেটরদের আইসিসির নির্দেশনা মেনেই কাজ করা উচিত।’ চেন্নাইয়ের ব্যতিক্রমী দুই পিচের ছবি পরে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমেও পোস্ট করেছেন।
হাফিজের এই অভিযোগের জবাব দিয়েছেন আকাশ চোপড়া। ক্রিকেট বিশ্লেষকের ভূমিকায় থাকা আকাশ পাল্টা প্রশ্ন ছুড়ে দিয়েছেন হাফিজের দিকেই। হাফিজের পোস্টটি শেয়ার দিয়ে ভারতের সাবেক এই টেস্ট ওপেনার লিখেছেন, ‘ভাই, চেন্নাইসহ ভারতের অন্য ভেন্যুগুলোর পিচ এখন আলাদা মাটি দিয়ে বানানো হয়। লাল-কালো ও মিশ্র। তুমি নিশ্চয় জানো, আলাদা মাটি দিয়ে পিচ বানালে ভিন্নধর্মী আচরণ করে। তাই পিচে আমূল পরিবর্তন দেখা গেলে অবাক হওয়ার কিছু নেই। পিচের ক্ষেত্রে মাটির চরিত্রটাও বুঝতে হবে।’
ভারতীয় দল পিচের সুবিধা নিচ্ছে কি না, সেটা নিয়ে বিতর্ক থাকলেও ঘরের মাঠে বিশ্বকাপে তাদেরই কিন্তু সবচেয়ে বেশি ভ্রমণের ঝামেলা পোহাতে হচ্ছে।

এবারের বিশ্বকাপ হচ্ছে ভারতের ৯ রাজ্যের ১০ ভেন্যুতে। সূচি অনুযায়ী, শুধু স্বাগতিক ভারতেরই এক ভেন্যুতে একাধিক ম্যাচ নেই। রোহিত শর্মার দলকে প্রথম পর্বের ৯ ম্যাচ খেলতে ৩৪ দিনে ভ্রমণ করতে হবে প্রায় ৮ হাজার ৩৬১ কিলোমিটার। সে তুলনায় পাকিস্তান দলকে অনেক কম—৬ হাজার ৮৪৯ কিলোমিটার।
বিশ্বকাপে নিজেদের প্রথম দুটি ম্যাচ জিতেই আজ মুখোমুখি হচ্ছে ভারত-পাকিস্তান। হাফিজ-আকাশদের কথার লড়াই শেষে এবার মাঠের লড়াই দেখার অপেক্ষা।



ফেইসবুক পেইজ