মঙ্গলবার, ১৬ এপ্রিল ২০২৪, ০৬:০২ অপরাহ্ন
                                           

বাতাসে রুপি উড়িয়ে ভাইরাল হতে গিয়ে খেয়ে গেলেন ধরা

আলোঝলমলে বিপণিবিতান। স্বাভাবিকভাবে ক্রেতা-বিক্রেতাদের ব্যাপক আনাগোনা। এর মধ্যে বাইরে হুলুস্থুল পড়ে যায়। কারণ, বাইরে বাতাসে রুপি উড়ছে। যে যেভাবে পারছে, সেই রুপি কুড়িয়ে নিচ্ছে। গত রোববার রাজস্থানের জয়পুর শহরের মালভিয়া নগর এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

একটি প্রাইভেট কারের ওপর দাঁড়িয়ে এক ব্যক্তি আকাশে রুপি ছড়িয়ে দিচ্ছিলেন। এগুলো ছিল ২০ রুপির একগাদা নোট। ওই ব্যক্তির মুখে ছিল মাস্ক আর পরনে লাল পোশাক। অপরাধী চক্রের গল্প নিয়ে তৈরি আলোচিত মানি হেইস্ট-এর ওয়েব সিরিজের চরিত্র বাস্তবে ফুটিয়ে তুলতে সেই রকম পোশাক পরে এই আয়োজন করেছিলেন তিনি। ইচ্ছা ছিল এ নিয়ে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে রিল তৈরি করবেন। রিল তৈরি না হলেও এই ঘটনার ভিডিও ভাইরাল হয়ে গেছে। গ্রেপ্তার হয়েছেন ওই ব্যক্তি।
পুলিশ কর্মকর্তা জ্ঞানচন্দ্র যাদব বলেন, অভিযুক্ত ব্যক্তির নাম অজয় শর্মা। তিনি জয়পুরের প্রতাপনগরের বাসিন্দা। তিনি দাবি করেছেন, নোটগুলো জাল। অজয় শহরের দুটি বিপণিবিতান সিটি পালস ও গৌরব টাওয়ারে গেছেন।

পুলিশের ওই কর্মকর্তা বলেন, ভিডিও ভাইরাল হওয়ার পর ওই ব্যক্তির অবস্থান শনাক্ত করতে তদন্ত শুরু হয়। তিনি যে গাড়িটির ওপর দাঁড়িয়েছিলেন, সেটির নিবন্ধন নম্বর বের করে গাড়িটি শনাক্ত করা হয় ও অভিযুক্তকে তলব করা হয়। গত মঙ্গলবার তাঁকে গ্রেপ্তার করা হয়। তাঁর বিরুদ্ধে শান্তি বিনষ্ট ও মোটর পরিবহন আইন লঙ্ঘনের অভিযোগে মামলা হয়েছে। গাড়িটিও জব্দ করা হয়েছে। অস্বাভাবিক এই ঘটনায় লোকজন রুপিগুলো ধরতে ছুটে এলে কিছু সময়ের জন্য সড়কে যান চলাচল ব্যাহত হয়।
জয়পুর পুলিশ তাদের এক্স হ্যান্ডেলে (সাবেক টুইটার) দুটি ছবি পোস্ট করে। এর একটি হচ্ছে—মাস্ক পরিহিত এক ব্যক্তি রুপি ছড়াচ্ছেন, আরেকটি হচ্ছে ওই ব্যক্তিকে গ্রেপ্তার করার। ছবি দুটি সম্পর্কে লেখা হয়, ‘জয়পুরে যে ব্যক্তি একটি প্রাইভেট কারের ওপর দাঁড়িয়ে রুপি ছড়িয়ে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে খ্যাতি পাওয়ার চেষ্টা করেছিলেন, তিনি ৩ অক্টোবর গ্রেপ্তার হয়েছেন।’



ফেইসবুক পেইজ