সোমবার, ১৫ এপ্রিল ২০২৪, ০২:১৪ পূর্বাহ্ন
                                           

মরক্কোয় ভূমিকম্পে ক্ষতিগ্রস্তদের জন্য খুলে দেওয়া হয়েছে রোনালদোর হোটেল

ভয়াবহ ভূমিকম্পে মরক্কো যেন ধ্বংসস্তূপে পরিণত হয়েছে। ৬.৮ মাত্রার এই ভূমিকম্পে এখন পর্যন্ত মারা গেছেন ২ হাজারের বেশি মানুষ। আহত ব্যক্তির সংখ্যাও অনেক। এরই মধ্যে প্রচুর মানুষ বাস্তুহারা হয়েছেন।

ভূমিকম্প দুর্গতদের সাহায্যে এগিয়ে এসেছেন বিশ্বব্যাপী নানা শ্রেণি–পেশার মানুষ। একইভাবে বিপর্যস্ত মানুষদের সাহায্যার্থে হাত বাড়িয়ে দিয়েছেন ক্রিস্টিয়ানো রোনালদো। মরক্কোয় রোনালদোর মালিকানাধীন হোটেলের দরজা খুলে দেওয়া হয়েছে ক্ষতিগ্রস্তদের জন্য।
মরক্কোয় রোনালদোর মালিকানাধীন হোটেলটির নাম পেস্তানা সিআর সেভেন মারাক্কেশ। বিশ্বব্যাপী সব মিলিয়ে এই হোটেলের ৫টি শাখা রয়েছে, যার একটি অবস্থিত মরক্কোর মারাক্কেশ শহরে। একাধিক ইউরোপিয়ান সংবাদমাধ্যম জানিয়েছে, বিলাসবহুল এই হোটেলটি এখন মরক্কোর ক্ষতিগ্রস্ত মানুষদের জন্য উন্মুক্ত করে দেওয়া হয়েছে।
মারাক্কেশ মরক্কোর চতুর্থ বৃহত্তম শহর। এই শহরটি পর্যটনের জন্যও বিখ্যাত। পাশাপাশি মারাক্কেশ ইউনেসকোর বিশ্ব ঐতিহ্যবাহী স্থানের তালিকাভুক্ত। রোনালদোর হোটেলটি এই শহরের এম অ্যাভিনিউ এলাকায় অবস্থিত, যেখানে সব মিলিয়ে কক্ষের সংখ্যা ১৭৪টি। এই কক্ষগুলো এখন বাণিজ্যিক উদ্দেশে নয়, বরং ব্যবহার করা হচ্ছে ভূমিকম্পে ক্ষতিগ্রস্তদের আশ্রয়কেন্দ্র হিসেবে।

শুধু রোনালদোই নন, মরক্কো জাতীয় দলের তারকা ফুটবলাররাও দেশের ক্ষতিগ্রস্ত মানুষদের পাশে দাঁড়িয়েছেন। আহত ব্যক্তিদের এরই মধ্যে রক্ত দান করেছেন খেলোয়াড়েরা।
মরক্কোর তারকা ফুটবলার আশরাফ হাকিমি সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে লিখেছেন, ‘আমরা সবাই কঠিন সময়ের মধ্য দিয়ে যাচ্ছি। এখন সময় একে অপরকে সাহায্য করার এবং যত বেশি সম্ভব জীবন বাঁচানোর। যাঁরা নিজেদের প্রিয়জন হারিয়েছেন, তাঁদের সবার প্রতি সমবেদনা রইল।’ একইভাবে সবাইকে মরক্কোর জন্য প্রার্থনা করতে বলেছেন দেশটির দুই তারকা ফুটবলার সোফিয়ান আমরাবাত ও হাকিম জিয়েচ।

এদিকে ভূমিকম্পের কারণে স্থগিত করা হয়েছে মরক্কো–লাইবেরিয়ার আফ্রিকান কাপ অব নেশনসের বাছাইপর্বের ম্যাচ।



ফেইসবুক পেইজ