বুধবার, ২২ মে ২০২৪, ০৩:২৪ অপরাহ্ন
                                           

মির্জা আব্বাস আদালতে, ৫ দিনের রিমান্ড চায় পুলিশ

বিএনপির জাতীয় স্থায়ী কমিটির সদস্য মির্জা আব্বাসকে ঢাকার চিফ মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট (সিএমএম) আদালতে আনা হয়েছে। আজ বুধবার বেলা দেড়টার দিকে ঢাকা মহানগর পুলিশের (ডিএমপি) গোয়েন্দা বিভাগের (ডিবি) গাড়িতে মির্জা আব্বাসকে আদালতে আনা হয়।
সংশ্লিষ্ট সূত্রগুলো বলছে, গত ২৮ অক্টোবর রাজধানীর নয়াপল্টনে বিএনপির নেতা-কর্মীদের সঙ্গে পুলিশের সংঘর্ষ হয়। এ ঘটনায় রাজধানীর শাজাহানপুর থানার একটি মামলায় মির্জা আব্বাসকে গ্রেপ্তার দেখানো হয়েছে। এ মামলায় তাঁকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য পাঁচ দিনের রিমান্ডের আবেদন করেছে পুলিশ। মির্জা আব্বাসকে এখন ঢাকার আদালতের হাজতখানায় রাখা হয়েছে।

গতকাল মঙ্গলবার রাতে মির্জা আব্বাস ও বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব সৈয়দ মোয়াজ্জেম হোসেন আলালকে গ্রেপ্তার করে ডিবি। শাহজাহানপুরের একটি বাসা থেকে তাঁদের গ্রেপ্তার করা হয়। পরে তাঁদের রাজধানীর মিন্টো রোডের ডিবি কার্যালয়ে নেওয়া হয়। আজ মির্জা আব্বাসকে আদালতে নিয়েছে পুলিশ। কিন্তু মোয়াজ্জেম হোসেনকে এখনো আদালতে নেওয়া হয়নি। আদালত-সংশ্লিষ্ট সূত্র এই তথ্যের সত্যতা নিশ্চিত করেছে।
তবে আজ দুপুরের দিকে ডিবি কার্যালয়ের সামনে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে ডিবির প্রধান হারুন অর রশীদ বলেন, মোয়াজ্জেম হোসেনকে পল্টন থানার একটি মামলায় গ্রেপ্তার দেখিয়ে আদালতে পাঠানো হবে। তাঁর ১০ দিনের রিমান্ডে চাওয়া হবে। এ ছাড়া সাবেক সেনা কর্মকর্তা লেফটেন্যান্ট জেনারেল চৌধুরী হাসান সারওয়ার্দীকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য ১০ দিনের রিমান্ডের আবেদন জানানো হবে।
২৮ অক্টোবর বিএনপির মহাসমাবেশের দিন মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনের উপদেষ্টা পরিচয় দেওয়া মিয়া আরেফিকে দলটির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে নিয়ে যাওয়ার ঘটনায় পল্টন থানার মামলায় সারওয়ার্দীকে গতকাল গ্রেপ্তার করা হয়। এর আগে গ্রেপ্তার হন মিয়া আরেফি। তাঁকে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।



ফেইসবুক পেইজ